ষ্টাফ রিপোর্টার।।ব্যাংকবীমা২৪.কম

অক্টোবর ১১, ২০২১

কাবুলের হোটেল খালির সতর্কবার্তা আমেরিকার

আফগানিস্তানে থাকা নাগরিকদের উদ্দেশে সতর্কবার্তা দিল আমেরিকা এবং ব্রিটেন। সে দেশের রাজধানী কাবুলের বিভিন্ন হোটেলে আমেরিকান এবং ব্রিটিশ নাগরিকদের যেতে নিষেধ করেছে দুই দেশ। সোমবার এই সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে।

আমেরিকার স্টেট ডিপার্টমেন্টের তরফে বলা হয়েছে, ‘‘সেরেনা হোটেলের কাছে বা সেরেনা হোটেলে যে সমস্ত আমেরিকার নাগরিক রয়েছেন তাঁদের দ্রুত অন্যত্র সরে যাওয়ার জন্য আবেদন জানানো হয়েছে।’’ ‘নিরাপত্তার কারণে’ এই ঘোষণা বলেও জানিয়েছে আমেরিকা। ব্রিটেনের বিদেশ মন্ত্রকের তরফেও ব্রিটিশ নাগরকিদের আফগানিস্তানে আসতে বারণ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে বলা হয়েছে, ‘‘নিরাপত্তার ঝুঁকি বাড়ছে। ব্রিটিশ নাগরকিদের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে, তাঁরা যেন কোনও হোটেলে না থাকেন। বিশেষ করে কাবুলে, সেরেনার মতো অভিজাত হোটেলে।’’আমেরিকা এবং ব্রিটেন সেনা সরিয়ে নেওয়ার পর থেকেই একের পর এক বিস্ফোরণের সাক্ষী থেকেছে তালিবান শাসিত আফগানিস্তান। তালিবান দখল নেওয়ার পর থেকেই কাবুল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপচে পড়েছিল দেশ ছাড়তে চাওয়া মানুষের ভিড়। সে সময়ই বিমানবন্দর চত্বরে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায় ইসলামিক স্টেট-খোরাসান (আইএস-কে)। ১৩ জন আমেরিকার সেনা-সহ প্রায় ১৭০ জনের মৃত্যু হয়েছিল সেই ঘটনায়। গত শুক্রবার কুন্দুজ প্রদেশে একটি মসজিদে ফের বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। তাতেও শতাধিক আফগানবাসী প্রাণ হারান। এই হামলারও দায় স্বীকার করে ইসলামিক স্টেট। অধিকাংশ নাগরিককে ফিরিয়ে আনা হলেও, সাংবাদিকতা এবং সামাজিক বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য বেশ কিছু বিদেশি নাগরিক রয়ে গিয়েছেন আফগানিস্তানে। জঙ্গি হামলায় তাঁরা যাতে কোনও সমস্যায় না পড়েন সে জন্যই এই সতর্কবার্তা আমেরিকা এবং ব্রিটেনের।