স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।।ব্যাংকবীমা২৪.কম

এপ্রিল ১৮, ২০২১

মির্জা আব্বাসের বক্তব্য বিএনপিতে ঝড়

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলীর গুমের পিছনে বিএনপির কারো হাত রয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য মির্জা আব্বাস। মির্জা আব্বাসের এই বক্তব্যে দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। কেউ বলছেন মির্জা আব্বাস অত্যন্ত স্পষ্টভাষী মানুষ। তিনি সাহস নিয়ে বলেছেন। বিএনপি মধ্যে অন্য দলের দালালদের খুঁজে বের করতে হবে। কেউ আবার নতুন ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছেন। তবে অনেকেই এ ব্যাপারে কথা বলতে চাননি, এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনা এবং সাংগঠনিক সম্পাদক এম ইলিয়াস আলীকে ফিরে পাওয়ার দাবিতে শনিবার (১৭ এপ্রিল) ভার্চুয়ালি আলোচনা সভায় মির্জা আব্বাস বলেন, ‘ইলিয়াস আলী গুম হওয়ার আগের রাতে দলীয় অফিসে কোনো এক ব্যক্তির সাথে তার বাকবিতণ্ডা হয়, ইলিয়াস খুব গালিগালাজ করেছিল তাকে। সেই বিষধর সাপগুলো এখনো আমাদের দলে রয়ে গেছে। যদি এদেরকে দল থেকে বিতাড়িত করতে না পারি সামনে এগুতে পারবেন না কোনো অবস্থাতেই।’

তিনি বলেন, ‘ইলিয়াস যে রাতে গুম হয় ওই রাত দেড়টা-পৌনে ২টার দিকে খবর পাই। তাৎক্ষণিকভাবে আমার পরিচিত কর্মকর্তাদের সাথে যোগযোগ করি তারা আমাকে জানান, তাকে চট্টগ্রাম নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে যেই পুলিশ কর্মকর্তাদের সামনে থেকে নেওয়া হলো, সেই পুলিশ কর্মকর্তাদের আজ পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। এই খবরটা আপনারা (উপস্থিত নেতৃবৃন্দ) জানেন না। সেই গাড়িতে যে কয়জন পুলিশ কর্মকর্তা ছিল তাদের আজও পাওয়া যায়নি। যেহেতু ইলিয়াস আলীর গাড়ি চালককেও পাওয়া যায়নি। আমি ধরে নিলাম আওয়ামী লীগ সরকার ইলিয়াস আলীকে গুম করেনি; তাহলে গুম করল কে?’

বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরামের সদস্য মির্জা আব্বাসের এ বক্তব্য থেকে বোঝা যায়, সরকারের বাইরে তৃতীয় কোনো পক্ষ ইলিয়াস আলীকে গুম করেছে। যাদের সহযোগিতা করেছে স্বয়ং বিএনপির কোনো কোনো নেতা। তাদেরকে খুঁজে বের করতে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে অনুরোধ জানান তিনি।

ইলিয়াস আলীর গুমের পিছনের বিএনপির কারো হাত রয়েছে; মির্জা আব্বাসের এই বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া দিতে বেশ কয়েকজন অনীহা প্রকাশ করেছেন।দলের এক ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, মির্জা আব্বাসের বক্তব্য শুনেছি। তিনি অত্যন্ত স্পষ্টভাষী মানুষ। বিএনপির মধ্যে থেকে বিএনপিকে ভাঙার ষড়যন্ত্র তো আছেই। এটা কম বেশি সবারই জানা। বিএনপিকে দুর্বল করতে তারা আগেও সক্রিয় ছিল, এখনো আছে।

নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক দলের এক গুরুত্বপূর্ণ নেতা বলেন, ৯ বছর পর মির্জা আব্বাস এ তথ্য দিয়েছেন। এটা তো আগেও দিতে পারতেন। আগে কেনো দিলেন না? এটা নিয়ে দলের মধ্যে নানান কথাবার্তা হচ্ছে। হওয়া স্বাভাবিক। বিএনপিকে ধ্বংস করার জন্য সরকার প্রতি মুহূর্তে ষড়যন্ত্র করছে। মির্জা আব্বাসের বক্তব্যে নতুন কোনো ষড়যন্ত্রও থাকতে পারে। বিএনপির সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের সজাগ থাকার কথাও বলেন তিনি।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ বলেন, এখানে আমার কোনো মতামত নেই। এটা উনার (মির্জা আব্বাস) ব্যক্তিগত মতামত। আমার জানা মতে বিএনপির মধ্যে এমন কেউ নেই যারা ইলিয়াস আলীর মত একজন ডেডিকেটেড লোককে গুম করবে। আজ সংবাদ সম্মেলন করবেন মির্জা আব্বাস। সেখানে হয়ত ব্যাখ্যা করবেন।

তিনি আরো বলেন, আমরা জানি ইলিয়াস আলীর গুমের পিছনে সরকারের হাত রয়েছে। ইলিয়াস আলীর স্ত্রী চারবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন। তারপরও কেনো এই মামলার কোনো সুরাহা হয়নি? গুম যেই করুক না কেনো রাষ্ট্রের দায়িত্ব এটা বের করার। সরকার ব্যর্থ হয়েছে সেটা বের করতে।

মির্জা আব্বাসের বক্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, রিপোর্টা পুরো দেখা হয়নি। এজন্য মন্তব্য করতে পারছি না।

ইলিয়াস আলীর গুমের পিছনে আওয়ামী লীগ সরকারকে দায়মুক্তি দিয়ে তৃতীয় পক্ষকে দেখছেন মির্জা আব্বাস। তিনি বলেন ‘আমরা কিন্তু সামনের লক্ষণ ভালো দেখছি না। ইলিয়াসকে গুমের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব লংঘিত হতে যাচ্ছে। আমি বারবার বলি নেতৃত্ব শূন্যতা। হিসেব করে দেখেন একটা একটা করে রাজনৈতিক দল শেষ করে দেওয়া হচ্ছে। এখন চলছে হেফাজত। বিএনপির ওপর নির্যাতন তো চলছেই। একটা সময় আওয়ামী লীগকেও শেষ করে দেওয়ার চেষ্টা করা হবে।

মির্জা আব্বাসের এই বক্তব্যে সমর্থন জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ইলিয়াস আলীর গুম হয়ে যাওয়া, নিখোঁজ হয়ে যাওয়া কাকতালীয় ব্যাপার বা তাকে গুম করা শুধু সরকারের সিদ্ধান্ত ছিল বলে আমরা মনে করি না। আমাদের বুঝতে হবে কী কারণে তিনি নিখোঁজ হলেন। বাংলাদেশ স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব রক্ষায় যারা কথা বলে, তাদেরকেই অত্যন্ত সচেতনভাবে সরিয়ে দেয়া হচ্ছে, নিখোঁজ করা হচ্ছে, আটক করে রাখা হচ্ছে।

আজ রোববার (১৮ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় শাজাহানপুরের নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন মির্জা আব্বাস। বিএনপি দফতর সূত্র জানিয়েছে, মির্জা আব্বাস এ বিষয়ে তার বক্তব্য স্পষ্ট করবেন।